ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার কি কি কাজ করবেন?
ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার কি কি কাজ করবেন

ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার কি কি কাজ করবেন?

ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার কি কি কাজ করবেন? এই প্রশ্নর উত্তর আপনাকে জানতে হবে যদি আপনি একজন সফল ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার হতে চান।

একজন ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার নতুন মার্কেটিং প্রবণতা চিহ্নিতকরণ,  মার্কেটিং প্রচারণা পরিকল্পনা এবং সম্পাদন ।এনালাইটিক এর টুলস ব্যবহার করে ব্যবসার দুর্বলতা নির্ণয় করে, এর সমাধান করে এবং কাস্টমারের কাছে ব্র্যান্ড  সম্পর্কে সচেতন করে তোলে, তার প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট  ট্রাফিক বৃদ্ধি করে।  সেটা ফ্রী  অথবা পেইড  যে কোন উপায়ে। 

ট্রাফিক বৃদ্ধি করতে ফ্রিতে যে সিস্টেম  ব্যবহার করা হয় তাকে বলা হয় এসিও ।  এসইও দুই ধরনের আপনারা আমার পূর্বের প্রবন্ধ থেকে শুনেছেন। 

 পেইড চ্যানেলের মাধ্যমে ট্রাফিক আনতে চাইলে ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার কে কিছু মাধ্যমে  সাহায্য নিতে হবে।  এর এর মধ্যে জনপ্রিয় এবং বহুল প্রচলিত মাধ্যমটি হলো গুগোল অ্যাড।  এরপর আছে ইউটিউব।  বর্তমানে ধীরে ধীরে জনপ্রিয় হয়ে উঠছে ফেসবুক।  এছাড়াও আরো কিছু সার্চ ইঞ্জিন কিংবা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে একজন ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার ওয়েবসাইটে ট্রাফিক  বাড়াতে পারেন। 

ডিজিটাল মার্কেটিং একটি বিস্তৃত শব্দ । যা বিভিন্ন ধরণের অনলাইন মার্কেটিং কৌশল গ্রহণ করে এবং ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার সাধারণত একটি দল পরিচালনা করেন। এই দলের  প্রত্যেক সদস্যদের নির্দিষ্ট ভূমিকা এবং দায়িত্ব রয়েছে। 

একজন ডিজিটাল মার্কেটিং ম্যানেজার কি কি কাজ করবেন এবং হতে হলে কি কি বৈশিষ্ট্য থাকতে হবেঃ

ইমেল মার্কেটিং বিশেষজ্ঞ(The email marketing specialist)

নতুন কিংবা পুরাতন প্রত্যেক কাস্টমারদের সাথে সংযুক্ত থাকতে হবে আপনার।  স্বয়ংক্রিয় ইমেইল সিস্টেম নিউজলেটার এবং  সেলস ইমেজ তৈরি করতে হবে।  ডিজাইনারদের সাথে কাজ করতে হবে এবং ই-মেইল এর মাধ্যমে কাস্টমারের কাছে প্রেরণ করতে হবে।  সেক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই কাস্টমারের ইমেইল কালেক্ট করতে হবে। একটা নির্দিষ্ট সময় অন্তর অন্তর কাস্টমারদের  সচেতন করতে হবে আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে সেটা পুরাতন হোক আর আপকামিং নতুন প্রোডাক্ট। 

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং  বিশেষজ্ঞ ( The social media marketing specialist)

যে কিনা সোশ্যাল মিডিয়া তে কনটেন্ট তৈরি করবে এবং প্রকাশ করবে। এই কনটেন্ট এর মাধ্যমে বিশ্বস্ত অডিয়েন্স তৈরি হবে,  ব্র্যান্ড সম্পর্কে সচেতনতা তৈরি হবে এমন কি কাস্টমারদের অনলাইন সেবা দেওয়া যাবে। 

সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং বিশেষজ্ঞ (The Search Engine Marketing – SEM Specialist)

সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং বিশেষজ্ঞর কাজ হলো-  ফেসবুক,  ইনস্টাগ্রাম,  গুগল এবং বিং এর মতো সার্চ ইঞ্জিন গুলোর মাধ্যমে কাস্টমারের কাছে ব্র্যান্ড  সম্পর্কে সচেতন করা এবং বিক্রয় বৃদ্ধি করা। 

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বিশেষজ্ঞ (The SEO Specialist)

একজন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন বিশেষজ্ঞ ওয়েবসাইটের পেজগুলোর অপটিমাইজ করে সার্চ ইঞ্জিনের রেজাল্ট পেজে উপরের দিকে  উঠিয়ে আনতে পারে।  সে ক্ষেত্রে তাকে তার কম্পিটিটর  এর কিওয়ার্ড রিসার্চ করে সেই অনুপাতে অন পেজ এসইও করতে হয়।  অনপেজ এসইও করার পর অফ পেজ এসইও করতে হয়।  সার্চ ইঞ্জিন রেজাল্ট পেজ কি ?  আমরা যখন কোন সার্চ ইঞ্জিনে কোন কিওয়ার্ড অর্থাৎ শব্দ লিখে সার্চ করি তখন এই সকল সার্চ ইঞ্জিন বিভিন্ন ওয়েবসাইটের একটি লিস্ট আমাদের সামনে পেজ আকারে তুলে ধরে।  গ্রাহকরা  মূলত এই পেজের প্রথম  প্রথম দিকের লিংক গুলোতে প্রবেশ করে তাদের কাঙ্খিত তথ্য কিংবা প্রোডাক্ট গ্রহণ করে থাকে। সেজন্যই একজন সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন  বিশেষজ্ঞ কে এই বিষয়ে বিস্তর ধারণা রাখতে হবে।  

অ্যাফিলিয়েট বিশেষজ্ঞ(The Affiliation Specialist)

একজন অ্যাফিলিয়েট বিশেষজ্ঞের দায়িত্ব হলো নতুন কিংবা প্রকৃতপক্ষে অ্যাফিলিয়েট যাচাই-বাছাই করা।  যে কিনা আপনার ব্যবসাকে আফিলিয়েশন করে আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে প্রমোশন করে এবং  বিক্রয় বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।   বিশেষজ্ঞ ব্যক্তি এই নতুন অ্যাফিলিয়েটেড চাকরি করে তার অ্যাপ্লিকেশন প্রদান করে। 

ধরে রাখার বিশেষজ্ঞ(The retention specialist)

শিরোনামে বুঝতে পেরেছেন এই বিশেষজ্ঞের কাজ কি? উনি পর্যবেক্ষণ করেন আনুগত্য গ্রাহকদের এবং  পুনরায় গ্রাহক উদ্যোগ  গুলি   ডেভলপ করা যাতে করে ব্যবসার আয় বৃদ্ধি পায় এবং গ্রাহককে লাইফটাইম অ্যাচিভমেন্ট হিসেবে ধরে রাখার প্রচেষ্টা করা। 

তথ্য বিশ্লেষক(The data analyst)

একজন তথ্য বিশ্লেষণ সমস্ত ডিজিটাল চ্যানেল গুলোর অতীত ও বর্তমান ডাটা বিশ্লেষণ করে ভবিষ্যতের জন্য পর্যালোচনা করে। যাতে বুঝতে পারে ব্যবসা সফল হচ্ছে, নাকি ব্যর্থ হচ্ছে। কিভাবে সফল হবে,  কোথায় গেলে ব্যর্থ হতে পারে । এইসকল পর্যালোচনা করার পর ই  ব্যবসা তার লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারে। 

Leave a Reply