মার্কেটিং নেটওয়ার্কিং-১

মার্কেটিং নেটওয়ার্কিং-১

ডিজিটাল মার্কেটিং এ নেটওয়ার্কিং এর উদ্দেশ্য ও উপকারিতা সম্পর্কে আমাদের জানতে হবে। এই ডিজিটাল মার্কেটিং এর নেটওয়ার্কিং  আপনাকে কিভাবে সাহায্য করতে পারি এবং এর গুরুত্ব কি সে সম্পর্কে আমি বিস্তারিত আলোচনা করব। 

নেটওয়ার্কিং এর সাধারণ লক্ষ্য হ’ল সমমনা লোকদের সাথে দেখা করা। তথ্য ভাগ করে নেওয়া এবং নতুন সুযোগ সন্ধান করা। এটি আপনাকে অন্যের সাথে পারস্পরিক উপকারী সংযোগ তৈরি করতে। আপনার ক্যারিয়ার বিকাশ করতে, এমনকি আপনার ব্যবসায় বাড়াতেও সহায়তা করতে পারে।

যদিও কিছু লোক নেটওয়ার্কিং সম্পর্কে আতঙ্কিত বোধ করে । তবে এটি আসলে অনেক মজার ব্যাপার। এবং এটি করার সময় আপনি যদি স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেন এবং চেষ্টা করতে পারেন,  তবে আপনি একটি ভাল অবস্থায় পৌছাতে পারবেন। এই  নেটওয়ার্ক  আপনাকে লক্ষ্য অর্জন করতে সহায়তা করবে। 

নেটওয়ার্কিং মূলত দুই ধরনের-

  1. ফেস টু ফেস নেটওয়ার্কিং 
  2. অনলাইন  নেটওয়ার্কিং

ফেস টু ফেস নেটওয়ার্কিং হল যে কোনও ধরনের নেটওয়ার্কিং পরিস্থিতি যা অন্যের সঙ্গে আপনার শারীরিক উপস্থিতি জড়িত। 

লিংকডইন বা টুইটারের মতো সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম গুলিতে যোগাযোগের মাধ্যমে অনলাইন নেটওয়ার্কিং স্থান গ্রহণ করতে পারে।

ডিজিটাল মার্কেটিং এর নেটওয়ার্কিং খুব গুরুত্বপূর্ণ এবং এই নেটওয়ার্কিং এর  প্রক্রিয়া দুই ধরনের হতে পারে। 

  1. অনানুষ্ঠানিক
  2. আনুষ্ঠানিক

সব সময় অনানুষ্ঠানিক নেটওয়ার্কিং হয়। আপনি সহকর্মীদের সাথে সামাজিক মিডিয়া তে অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। তবে আপনাকে নেটওয়ার্ক তৈরি করতে সক্রিয় হতে হবে। 

আনুষ্ঠানিক নেটওয়ার্কিং হল, আপনার ব্যবসা বা পেশা কে লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য নতুন লোক বা ব্যবসায়ের সাথে সাক্ষাৎ করার অভিপ্রায় নিয়ে যাত্রা করতে হবে। এই আনুষ্ঠানিক নেটওয়ার্কিং এর মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন  ইভেন্টগুলি অংশ নেওয়া। উদাহরণস্বরূপ; বিভিন্ন অ্যাসোসিয়েশনের সদস্য হওয়া কিংবা বিভিন্ন সংগঠনের সাথে যুক্ত হওয়া। 

বর্তমান বিশ্বকে বলা হয় ডিজিটাল বিশ্বে। অনলাইন নেটওয়ার্কিং ফেস টু ফেস নেটওয়ার্কিং এর চেয়ে বেশি না হলে সমান গুরুত্বপূর্ণ হিসাবে দেখা যেতে পারে। ডিজিটাল যোগাযোগ এবং সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম গুলির বর্ধনের সাথে, অনলাইন নেটওয়ার্কিং, ফেস টু ফেস নেটওয়ার্কিং এর চেয়ে দ্রুত, আরও কার্যকর এবং আরও পৌঁছাতে হতে পারে। ফেস টু ফেস নেটওয়ার্কিং এখনও অনেকটা বেঁচে আছে কারণ এটি একটি অপরিহার্য ব্যবসায় এবং সামাজিক দক্ষতা।

নেটওয়ার্কিং শুধুমাত্র আপনার অঞ্চলের মধ্যে সীমাবদ্ধ রাখলে হবে না বিভিন্ন সংগঠন এর মধ্যে সম্পর্ক কিংবা নেটওয়ার্কিং তৈরী করতে হবে এবং এর পাশাপাশি অন্যান্য সংগঠনের সাথে সম্পৃক্ত হতে হবে। এমনকি আপনাকে আপনার চেয়েও ক্ষুদ্র কোন  ব্যবসা নেটওয়ার্কিং স্থাপন করতে হবে। শুধু আপনি উপকৃত হবেন না অন্য উপকৃত হবে।  মনে করেন আপনি একটি সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন।  কোন সংগঠনের সাথে যুক্ত হলে,  দেখতে পাবেন আপনার মধ্যে সমস্যা অন্য কেউ সম্মুখীন হয়েছে এবং তার সমাধান করে ফেলেছে।একটি শক্তিশালী  নেটওয়ার্ক তৈরী করা। নতুন কিছু শেখা।  নিজেকে  বিকশিত করা।  এবং বিভিন্ন কৌশল সম্পর্কে জানতে পারা যায়। 

আপনার সাথে কাজ করতে পারে এমন বিভিন্ন ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ রাখতে নেটওয়ার্কিং তৈরি করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তবে বিভিন্ন ক্লায়েন্টের সাথেও যোগাযোগ রাখতে হবে।

 

Leave a Reply